বড় দুঃসংবাদ পেল ঢাকা ডায়ানামাইটস

ডেস্ক রিপোর্টঃ টি-টোয়েন্টি অভিষেকেই হ্যাটট্রিক তুলে নিয়ে আলোচনায় আসা স্পিনার আলিস আল ইসলামের বিপিএল শেষ। হাঁটুর ইঞ্জুরিতে চলমান আসর থেকে ছিটকে গেছেন তিনি।

সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে সিলেট পর্বের ম্যাচে ফিল্ডিং করতে গিয়ে হাঁটুতে চোট পান তিনি। এরপর নিজের ইনিংসের নবম ও নিজের দ্বিতীয় ওভারে বল করতে গিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি।

ম্যাচ শেষেই জানা গিয়েছিল চোট গুরুতর। দলটির ম্যানেজার আজম ইকবাল সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছিলেন, ‘আলিসের ইনজুরি এখন পর্যন্ত যা দেখছি আমরা, মনে হচ্ছে একটু বেশিই। আমরা এক্সরে, এমআরআই না করানোর আগে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছি না। তবে এখন পর্যন্ত দেখে ভালো মনে হচ্ছে না। ইনজুরিটা ওর হাঁটুতে।”

অবশেষে শঙ্কায় সত্যি হলো। চোটের জন্য দল থেকে ছিটকে যেতে হলো তাকে। বিপিএলের মাঝপথে দল থেকে ছিটকে যাওয়ায় এরইমধ্যে টিম হোটেল ছেড়ে বাড়ি ফিরে গেছেন তিনি।

বিপিএল অভিষেকে নানান নাটকীয় ঘটনার মধ্য দিয়ে গিয়েছিলেন আলিস। টানা দুই ক্যাচ ছেড়ে দেওয়া, অতঃপর বল হাতে হ্যাটট্রিক তুলে নিয়ে রীতিমত বিশ্বরেকর্ড, দলকে জয় উপহার দেওয়া, ম্যাচ শেষে বোলিং অ্যাকশনের সন্দেহের অভিযোগের সম্মুখীন হওয়া; সবই ছিল তার অভিষেকে।

প্রতিযোগিতায় ভালো খেলতে থাকলেও শেষ পর্যন্ত দুঃস্মৃতি সাথে নিয়ে দল ছাড়তে হলো তাকে। এদিকে তার বিরুদ্ধে রংপুর রাইডার্সের বোলিং অ্যাকশনের সন্দেহের পর ম্যাচ অফিসিয়ালদের কাছ থেকেও একই অভিযোগ পাওয়া গেছে। যার ফলে চলতি তাকে সম্মুখীন হতে হবে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষার।

চলতি মাসের ২৬ জানুয়ারি তার বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা নেওয়ার কথা ছিল। এখন যেহেতু হাঁটুর ইঞ্জুরিতে তিনি তাই এ মুহূর্তে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা তিনি দিতে পারবেন কিনা তা নিয়ে দেখা দিয়েছে নতুন সংশয়। আপাতত ইঞ্জুরির জন্য পরীক্ষার দিতে না পারলেও সুস্থ হওয়ার পর সর্বপ্রথমই পরীক্ষা দিতে হবে তাকে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.