জামায়াত ক্ষমা চাইলেও যুদ্ধাপরাধের বিচার চলবে: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, স্বাধীনতার ৪৭ বছর জামায়াত এখন ক্ষমা চাওয়ার বিষয়টি কেনো সামনে নিয়ে আসছে, এটা ঘোলাটে। তাদের রাজনৈতিক কৌশল হতে পারে। যদিও অফিসিয়ালি তারা এখনও কিছু বলেনি। তবে ক্ষমা চাইলেও যুদ্ধাপরাধ এবং মানবতাবিরোধী অপরাধের যে বিচার চলছে, সেটা বন্ধ হবে না।

শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে জামায়াতের ক্ষমা চাওয়ার কথা বলে সদ্য পদত্যাগ করা দলটির সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাক প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

 

মন্ত্রী বলেন, নতুন নামে জামায়াত। নতুন বোতলে পুরাতন মদ যদি আসে, তাহলে পার্থক্যটা আর কী। নতুন নামে পুরাতন আদর্শই যদি তাকে, তাহলে তো একই কথা। ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী অবসরের কথা বলেছেন। এর আগেও তিনি অবসর নিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু দলের নেতাকর্মী ও কাউন্সিলরদের দাবির মুখে তিনি পারেননি। আগামীতেও নেতাকর্মীরা তাকে ছাড়বে কি-না সেটা ভবতে হবে।

‘আগামী মাসে চাকরিতে আবেদনের বয়স ৩৫ বছর করে দেওয়া হবে’ এমন খবরকে গুজব বলে বলেছেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ নিয়ে আমি কোনো কথা বলিনি। প্রথমে আমি এটা জানিয়ে রাখছি। এটা তারাই গুজব ছড়াচ্ছে। নিউজের মধ্যে আমার কোনো ভয়েস আছে? ভয়েস না থাকলে হয় কী করে! এটা ফলস অ্যান্ড ফেব্রিকেটেড!

 

জামায়াত নতুন নামে আসলে আওয়ামী লীগ তাদেরকে স্বাগত জানাবে কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। নতুন নামে, নতুন বোতলে পুরানো মদ আসলে পার্থক্য কোথায়! জিনিস তো একটাই। তাদের আদর্শ ঠিক আছে, নতুন নামে আদর্শ আসবে। তাহলে পার্থক্য কোথায়! দেখতে হবে এ বিষয়গুলো। নানা কথা মিডিয়ায় আসছে। এগুলো আগে পরিষ্কার হওয়া দরকার, তার আগে আমরা কেনো মন্তব্য করতে যাবো?

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.