পাকিস্তানের সরফরাজকে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব দিয়ে নিষিদ্ধ ১০ বছর

২০১৭ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ চলার সময়ই ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার বিষয়টি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে (পিসিবি) জানান সরফরাজ আহমেদ।

পিসিবি সেটা জানায় আইসিসির দুর্নীতি দমন কমিশনকে (এন্টি করাপশন ট্রাইবুনাল)। সেই কমিশনের তদন্তে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন শারজাহ ভিত্তিক ক্রিকেট কোচ ইরফান আনসারি।

 

ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় ইরফান আনসারিকে ১০ বছরের জন্য ক্রিকেট সম্পর্কিত যে কোনো কার্যক্রম থেকে নিষিদ্ধ করেছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি।

শারজাহ ক্রিকেটের গুরুত্বপূর্ণ একজন ব্যক্তিত্ব এই আনসারি। গত তিন যুগ ধরে শারজাহ ক্রিকেট কাউন্সিলের সঙ্গে কাজ করছেন তিনি। তিনি আল ধাইদ ক্রিকেট ভিলেজের দায়িত্বে ছিলেন, যেখান থেকে টুর্নামেন্ট আয়োজন করে সেটা শহরে নিয়ে আসা হয়। ২০১৭ সালে চাকরি হারানোর আগে আনসারি শারজাহ ক্রিকেট ক্লাবের প্রধান কোচও ছিলেন।

 

এদিকে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার কথা জানিয়ে দেয়ায় পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের প্রশংসাই করেছেন আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল। মার্শাল বলেন, ‘আমি সরফরাজ আহমেকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, যিনি সত্যিকারের নেতৃত্বগুণ এবং পেশাদারিত্ব দেখিয়ে এই প্রস্তাবের বিষয়টি রিপোর্ট করেছেন। তিনি এটা প্রত্যাখ্যান করেন এবং রিপোর্ট করেন। তারপর তদন্তকাজেও সাহায্য করেছেন।’

 
 

Leave A Reply

Your email address will not be published.