তদন্তের পর সব কেমিক্যাল কারখানা উচ্ছেদ হবে : কাদের

তদন্তের পর সরকার পুরনো ঢাকায় কেমিক্যাল কারখানা পুরোপুরি উচ্ছেদ কার্যক্রমে (এভিকশন ড্রাইভ) যাবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

পুরনো ঢাকায় ভয়াবহে অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে যাওয়া রোগীদের ঢাকা মেডিকেল কলেজের জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে দেখতে এসে বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন। এ সময় সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালও উপস্থিত ছিলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আছি। শেখ হাসিনার সরকার ক্ষতিগ্রস্তদের মানবিক সাহায্য পুনর্বাসন এবং নিহতদের সাহায্য সহায়তার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী নিজে দায়িত্ব নিয়েছেন। যারা বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন তাদের চিকিৎসার ব্যাপারে শেখ হাসিনা দায়িত্ব নিয়েছেন।

 

পুরনো ঢাকায় ঘিঞ্জি পরিবেশ থেকে কেমিক্যাল কারখানা সরানোর কথা ছিল, এ ব্যাপারে পাশে থাকা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ২০০৯ সালের নিমতলীর ঘটনার পর আমরা বলে আসছি ওখান থেকে কেমিক্যাল গুদাম সরিয়ে নিতে। এরপর আবার চলে আসছে। তাই এখন মেয়র মহোদয় পদক্ষেপ নিয়েছেন তিনি আর লাইসেন্স রিনিউ করছেন না এখন পর্যন্ত আমি যতটুকু জানি তিনি একটা পদক্ষেপ নেবেন এগুলো সরিয়ে দেয়ার জন্য।

অবৈধ কেমিক্যাল কারখানায় উচ্ছেদে কোনো নির্দেশনা দিয়েছেন কিনা, জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আপনি নিশ্চয়ই ওই এলাকায় দেখেছেন ওখানে কোথায় কিভাবে কে থাকে তা বের করা বড় মুশকিল। মেয়র মহোদয় দিকনির্দেশনা দিলে আমরা এগুলো সব ক্লিয়ার করে দিতে পারব।

 
 

Leave A Reply

Your email address will not be published.